উমরাহ করার নিয়ম এবং মদীনা শরীফ যিয়ারত

উমরাহঃ হিল (হারামের সীমানার বাইরে মিকাতের ভেতরের স্থান) থেকে অথবা মিকাত থেকে ইহরাম বেঁধে বায়তুল্লাহ শরিফ তাওয়াফ করা, তাওয়াফের দুই রাকাত নামাজ পড়া, জমজম শরীফ পান করা, সাফা-মারওয়া সাঈ করা এবং মাথার চুল ফেলে দেওয়া বা ছোট করা । এই কাজ গুলো ধারাবাহিকভাবে করাকে উমরাহ বলে। উমরাহ করার নিয়ম ১. উমরার ইহরাম (ফরজ) পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা সেরে গোসল বা অজু করে নিন। মিকাত অতিক্রমের আগেই সেলাইবিহীন একটি সাদা কাপড় পরিধান করুন, আরেকটি গায়ে জড়িয়ে নিয়ে নিন। এর পর টুপি পরে বা গায়ের চাদর দ্বারা মাথা ঢেকে (টুপি বা চাদর উমরাহ বা হজ্জ এর নিয়ত করার আগে নিয়ে ফেলবে । কারণ ইহরাম বেঁধে পেললে মস্তক ঢাকা নিষিদ্ধ) ইহরামের নিয়তে দু‘রাকাআত সুন্নাত নামাজ (১ম রাকাতে সুরা ফাতেহার সাথে সুরা কাফেরুন এবং ২য় রাকাতে সুরা ফাতেহার সাথে সুরা এখলাস পাঠ করা) আদায় করবে ৷ মাকরূহ ওয়াক্ত হলে নামাজের জন্য অপেক্ষা করবে৷ বাংলায় নিয়তঃ ইহরামের দুরাকাত সুন্নাত নামাজ আদায় করার উদ্দেশ্যে নিয়্যত করলাম, আল্লাহু আকবার। উমরাহর নিয়ত করে এক বা তিনবার তালবিয়া পড়ে নিন। পুরুষরা উচ্চঃস্বরে আর মহিলারা নিম্নস্বরে তালবিয়াহ্‌ পাঠ করবে। উমরাহর নিয়তঃ আল্লাহুম্মা ইন্নি উরীদুল উমরাতা ফাইয়াছ ছিরহালী ওয়া তাকাব্বালহা মিন্নি। অর্থঃ- হে আল্লাহ আমি উমরাহ পালনের নিয়ত করছি। তা আমার জন্য সহজ করে দিন এবং কবুল করে নিন। অথবা- লাব্বাইকা আল্লাহুম্মা উমরাতান। (হে আল্লাহ! আমি হাজির, উমরাহ পালনের জন্য) তালবিয়া হলোঃ লাব্বাইকা আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, লাব্বাইকা লা শারিকা লাকা লাব্বাইক, ইন্নাল হাম্‌দা, ওয়াননি’মাতা লাকাওয়াল মুলক, লা শারিকালাক । কাবা শরিফে প্রবেশ (‘বাবুস সালাম’ দরজা...

Read More